অজিদের জয়ের জন্য ৩৫৩ রান প্রয়োজন

image

স্পোর্টস ডেস্ক-

দুর্দান্ত শতরান ধাওয়ানের ব্যাটে, হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন বিরাট কোহলি।

আগের ম্যাচেই শতরান করেছিলেন রোহিত শর্মা। এবার ঝলসে উঠলো শিখর ধাওয়ানের ব্যাট। মহারণে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তার ব্যাট থেকে এসেছে ঝলমলে সেঞ্চুরি। সঙ্গে হাফসেঞ্চুরি রোহিত ও বিরাট কোহলির ব্যাটে। তাদের দাপটেই অজিদের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বড় সংগ্রহ গড়েছে ভারত।

রবিবার (৯ জুন) লন্ডনের কেনিংটন ওভালে ভারতীয় দল কঠিন চ্যালেঞ্জ দিয়েছে অ্যারন ফিঞ্চের দলকে। বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৫২ রান তুলে ভারত।

টসে জিতে ভারতের অধিনায়ক শুরুতেই ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। আগের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানো দলটি এদিনও দারুণ দাপটে শুরু করে লড়াই। অধিনায়কের সিদ্ধান্তটা যৌক্তিক করে দারুণ সূচনা এনে দেন রোহিত শর্মা ও শিখর ধাওয়ান। দু'জন উদ্বোধনী জুটিতে যোগ করেন ১২৭ রান।

গত ম্যাচে সেঞ্চুরির পর এবার হাফসেঞ্চুরি করে সাজঘরে ফেরেন রোহিত। ৭০ বলে ৫৭ রান করা এই তারকাকে ফেরত পাঠান নাথান কোল্টার নাইল। এদিনই মহেন্দ্র সিং ধোনির (৩৫৪)ছাড়িয়ে ভারতের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ছক্কার মালিক হয়ে যান রোহিত।

সঙ্গী হারালেও অপ্রতিরোধ্য ছিলেন শিখর ধাওয়ান। ৯৫ বলে ১৩টি বাউন্ডারিতে পা রাখেন তিন অঙ্কে। তুলে নেন ক্যারিয়ারের ১৭তম ওয়ানডে শতরান।

এরমধ্যে অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে তার দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে তুলেন ৯৩ রান। শেষ অব্দি ১০৯ বলে ১১৭ রানে ফেরেন ধাওয়ান। ব্যাটিং উইকেটে কথা বলল কোহলির ব্যাটও। অজি বোলিং আক্রমণ উড়িয়ে দিয়ে সফল তিনিও। ভারত অধিনায়ক করেন ৭৭ বলে ৮২ রান। ইনিংসে ছিল দুই ছক্কা আর ৪ বাউন্ডারি।

অন্য প্রান্তে হার্দিক পান্ডিয়া খেলেন ঝড়ো ইনিংস। তার ব্যাটে ২৭ বলে আসে ৪৮ রান। দলকে শেষদিকে বড় পুঁজি এনে দিতে ভূমিকা রাখেন এই অলরাউন্ডার। মহেন্দ্র সিং ধোনি ১৪ বলে ২৭ রান তুলে ধরেন সাজঘরের পথ।

রবিবার আগের ম্যাচের জয়ী দলটা নিয়েই নেমেছে ভারত। একইভাবে অস্ট্রেলিয়াও তাদের একাদশে কোনো পরিবর্তন আনেনি।

বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত ভারত-অস্ট্রেলিয়া মুখোমুখি হয়েছে ১১ বার। ৮ বার জিতেছে অস্ট্রেলিয়া, ভারত ৩ বার।

আন্দোলন৭১/জিকে