ঢাকা মঙ্গলবার,২০,আগস্ট, ২০১৯

কাশ্মীরে বিনিয়োগ করবেন মুকেশ আম্বানি

image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক-

ভারতীয় ধনকুবের মুকেশ আম্বানি কাশ্মীরে বিনিয়োগের প্রতুশ্রুতি দিয়েছেন। সৌদি রাষ্ট্রীয় তেল প্রতিষ্ঠান আরামকোর সঙ্গে হাজার কোটি ডলারের চুক্তির খবরের দিনই তিনি এ ঘোষণা দেন। আম্বানি জানান, নবগঠিত ইউনিয়ন টেরিটরিজ অব জম্মু ও কাশ্মির এবং লাদাখে সামনের দিনগুলোতে বিনিয়োগের ঘোষণা দেবে রিল্যায়ান্স।

এছাড়া জম্মু ও কাশ্মিরে পরিস্থিতি অনুসন্ধানের জন্য বিশেষ টাস্কফোর্স গঠনেরও ঘোষণা দেন বিশ্বের অন্যতম এই ধনী ব্যবসায়ী।  

স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেওয়ার পর অবরুদ্ধ অবস্থায় ঈদের দিন কাটিয়েছে ভারত শাসিত কাশ্মিরের বাসিন্দারা। আর এমন দিনেই সৌদি আরবের বড় বিনিয়োগ পাওয়ার কথা জানায় ভারত। ভারতের রিল্যায়ান্স গ্রুপের ‘অয়েল টু কেমিক্যালস’ (ওটিসি) বিভাগের ২০ শতাংশ শেয়ার কিনে নিচ্ছে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি আরামকো।

সোমবার রিল্যায়ান্স গ্রুপের বার্ষিক সাধারণ সভায় কোম্পানির চেয়ারম্যান মুকেশ আম্বানি জানান, শেয়ার কিনে নিয়ে ভারতে সাড়ে সাত হাজার মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করতে যাচ্ছে সৌদি প্রতিষ্ঠানটি।

আম্বানি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অনুরোধে তিনি কাশ্মির ও লাদাখের জনগণের পাশে দাঁড়াবেন। সামনের দিনগুলোতে তাদের নিয়ে বেশ কয়েকটি ঘোষণা আসবে।

গত ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার কেড়ে নেয় বিজেপি নেতৃত্বাধীন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। ওই দিন সকাল থেকে জম্মু-কাশ্মিরের গ্রীষ্মকালীন রাজধানী শ্রীনগর কার্যত অচলাবস্থার মধ্যে রয়েছে। দোকান, স্কুল, কলেজ ও অফিস বন্ধ রাখা হয়েছে। কোনও গণপরিবহন নেই। ইন্টারনেট-মোবাইল পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে ঘিরে রাখা জনশুণ্য রাস্তায় টহল দিচ্ছে সশস্ত্র সেনারা। নিরাপত্তা চৌকি, নজরদারি আর কারফিউর ঘেরাটোপে বন্দি হয়ে পড়েছে কাশ্মিরিদের ঈদের আনন্দ।

প্রতি বছরই ঈদুল আজহার অন্তত এক সপ্তাহ আগে থেকে উৎসবের ঢেউ লেগে যায় উপত্যকায়। দলবেঁধে মানুষ বাজারে যায়; পোশাকসহ বিভিন্ন সাজসরঞ্জাম কেনে। বেকারির দোকানগুলোতে সাজসাজ রব পড়ে যায়। তবে এবারের বাস্তবতা একেবারেই আলাদা।

আন্দোলন৭১/এস