ঢাকা মঙ্গলবার,২০,আগস্ট, ২০১৯

পটুয়াখালীতে 'বন্দুকযুদ্ধে' ৩০ মামলার আসামি নিহত

image

পটুয়াখালী প্রতিনিধি-

পটুয়াখালীতে আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সর্দার ও আড়াই ডজন মামলার আসামি চাঁন মিয়া হাওলাদার (৪২) পুলিশের কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। শনিবার (১০ আগস্ট) প্রত্যুষে (ভোর রাত ৩টার দিকে) সদর উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের কুয়াকাটা মহাসড়ক সংলগ্ন বল্লভপুর এলাকায় কথিত বন্দুক যুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে।

এসময় বেশ কিছু দেশীয় তৈরী অস্ত্র ও গুলির খোসা উদ্ধার করেছে পুলিশ। বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় সদর থানার ওসিসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবী করা হয়েছে। ডাকাত চানের বাড়ী বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলার পশ্চিম কলাগাছিয়া গ্রামে।

সদর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ঈদ উপলক্ষে পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কে আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনসহ মাদকদ্রব্য ও অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার অভিযানে যাচ্ছিল পুলিশের একটি দল। এসময় বল্লভপুর নামক স্থানে পৌছলে আগে থেকে প্রস্তুতি নেয়া ১০-১২ জনের একটি ডাকাত দল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এসময় পুলিশও পাল্টাগুলি চালায়। এতে ডাকাত সর্দার চাঁন মিয়া ঘটনাস্থলেই নিহত হন। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে দেশীয় তৈরী ১টি পাইপগান, বন্দুকের ৬ রাউন্ড কার্টুজের খালী খোসা, ৬টি লোহার বগি দা ও ১টি রাম দা।

ওসি আরও জানান, নিহত চাঁন মিয়া আড়াই ডজন মামলার আসামি। তার বিরুদ্ধে পটুয়াখালীতে ৬টি, বরগুনা জেলার বিভিন্ন থানায় ১২টি, ঢাকা জেলা ও ডিএমপিসহ মোট ৩০টি মামলা দায়েরের তথ্য পুলিশের জানা রয়েছে। এর মধ্যে বরগুনা সদর থানার একটি মামলায় ১০ বছর ৬ মাস সাজা প্রাপ্ত হয়ে পলাতক ছিল নিহত চাঁন মিয়া।

আন্দোলন৭১/গোফরান পলাশ/এস