ঢাকা সোমবার,২৩,সেপ্টেম্বর, ২০১৯

শুভ জন্মদিন কনকচাঁপা

image

বিনোদন ডেস্ক- 

চলচ্চিত্র, আধুনিক গান, নজরুল সঙ্গীত, লোকগীতি সহ প্রায় সবধরনের গানে তিনি সমান পারদর্শী। প্লে-ব্যাক সিঙ্গার হিসেবে তিনি নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছেন। ৩৪ বছর ধরে সংগীতাঙ্গনে সমানতালে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি।এ পর্যন্ত তিনি চলচ্চিত্রের তিন হাজারেরও বেশি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন।সেই সাথে প্রকাশিত হয়েছে ৩৫টি একক গানের অ্যালবাম। যার গান এখনো কোটি শ্রোতার মুখে মুখে। তিনি  জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী রুমানা মোর্শেদ কনকচাঁপা। যদিও তিনি কনকচাঁপা নামেই সমাধিক পরিচিত।

আজ ১১ সেপ্টেম্বর, বুধবার এই প্রথিতযশা কণ্ঠশিল্পীর জন্মদিন। শুভ জন্মদিন কনকচাঁপা। ১৯৬৯ সালের এই দিনে সিরাজগন্জ রাজশাহী বাংলাদেশ। বাবা আজিজুল হক মোর্শেদ। পাঁচ ভাই বোনের মধ্যে রুমানা তৃতীয়।


চলচ্চিত্রের গান নিয়ে তাঁর সর্বশেষ প্রকাশিত অ্যালবাম ‘আবার এসেছি ফিরে। বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শাবনুরের প্রায় প্রতিটি গানেই কনক চাঁপা কন্ঠ দিয়েছেন।তার গান মানেই তুমুল শ্রোতাপ্রিয়।

গানের পাশাপাশি লেখক হিসেবেও কনকচাঁপার সুখ্যাতি রয়েছে। ২০১০ সালের অমর একুশে বইমেলায় ‘স্থবির যাযাবর’, ২০১২ সালের অমর একুশে বইমেলায় ‘মুখোমুখি যোদ্ধা’ ও ২০১৬ সালের অমর একুশে বইমেলায় ‘মেঘের ডানায় চড়ে’ নামে তিনটি বই প্রকাশিত রয়েছে। বেশ কয়েকটি জাতীয় দৈনিকে নিয়মিত কলামও লেখেন তিনি।


ছোট্ট একটা জীবন, অনেক সাধনার পরে আমি পেলাম তোমার মন, তোমাকে চাই শুধু তোমাকে চাই, ভাল আছি ভাল থেকো, যে প্রেম স্বর্গ থেকে এসে জীবনে অমর হয়ে রয় (খালিদ হাসান মিলুর সাথে), আমার নাকেরই ফুল বলে রে তুমি যে আমার, তোমায় দেখলে মনে হয়, আকাশ ছুঁয়েছে মাটিকে তার উল্লেখ্যযোগ্য গান। 

নারী শ্রেষ্ঠ প্লেব্যাক কন্ঠশিল্পী হিসেবে রুনা লায়লা ও সাবিনা ইয়াসমিনের পরে তিনিই একাধিক তিনবার জাতীয় চলচ্চিত পুরস্কার লাভ করেন।

(তথ্যসুত্র-উইকিপিডিয়া)

আন্দোলন৭১/এডি