হালকা রঙের ছোঁয়ায় রঙিন ঈদ

image

লাইফস্টাইল ডেস্ক- 

রোজা শুরু হতে না হতেই কেনাকাটার ধুম পরেছে ক্রেতাদের। রোদ, গরম, বৃষ্টি বিচিত্র এই আবহাওয়ার কথা মাথায় রেখে এবার ঈদে সফট কালার ও আরামদায়ক কাপড়ে পোশাকের ডিজাইন করেছে ডিজাইনাররা। 

এবার পোশাকের ফ্যাব্রিক সুতি ও লিনেন প্রাধান্য পেয়েছে। নীল পেয়েছে রঙের প্রাধান্য, তবে এবার হালকা রঙের চাহিদাই বেশি।  এছাড়াও এবার বডিফিটেড নয়; বরং লুজ ফিটেড পোশাকের চাহিদা বেশি। 

ঈদে মেয়েদের পোশাকঃ

এবার ঈদে মেয়েদের পোশাকে লেয়ার কাট হচ্ছে ফ্যাশন ট্রেন্ড।পাশাপাশি ফ্লোরটাচ কামিজ বা গাউনের পাশাপাশি সেমি লং পোশাকও থাকছে। এছাড়াও এবার কামিজ, টপ, ক্যাপ কিংবা গাউনের মোটিফ হিসেবে মোগল থিম ব্যবহার করা হয়েছে। বিভিন্ন রকমের কাপড়ের উপর হ্যান্ড এমব্রয়ডারি, মেশিন এমব্রয়ডারি, টাইডাই, স্ক্রিন প্রিন্ট, ব্লক প্রিন্ট,কারচুপি ও হাতের কাজ করা পোশাকের চাহিদা প্রচুর। 

এছাড়াও কটি বেইজড সালোয়ার-কামিজ, লেয়ার কামিজের চাহিদাও রয়েছে ক্রেতাদের। ডিজাইনের মধ্যে বেশি লেন্থ ও ঘের,  ঝুল পেছনে বেশি, সামনে কম, সিঙ্গেল কামিজের বুকে ছোট পকেট, কাতান, প্যাচওয়ার্ক, লেস, বাটনের চাহিদা বেশি। স্কার্ট কাটের পালাজ্জো এবারকার ট্রেন্ড। এ ছাড়া রয়েছে জিগজ্যাগ, জ্যামিতিক ফর্ম কিংবা স্ট্রাইপের নকশার সিগারেট প্যান্ট ও পেনসিল প্যান্ট।

 অন্যদিকে, শাড়ির ক্ষেত্রে এবার বডির চেয়ে ভারী নকশা করা পাড় বেশি গুরুত্ব পেয়েছে। পাড়ের সঙ্গে কনট্রাস্ট করেই ব্লাউজের ডিজাইন করা হয়েছে। 


 ঈদে ছেলেদের পোশাকঃ

এবার ঈদে মেয়েদের মত ছেলেদেরও একটু ডিলেডালা পোশাকের চাহিদা বেশি। পাঞ্জাবিতে কারচুপি, এমব্রয়ডারির পাশাপাশি তিন রংয়ের প্লেট অথবা নেক বেশ চলছে। রঙের মধ্যে সাদা, কালো, অ্যাশ, নীল, সবুজ, মেরুন ও বাদামি শেডের চাহিদা বেশি। এছাড়াও হালকা নীল, সাদা, ঘিয়ে, বাদামি, সবুজাভ, হালকা কমলা, ফিরোজা, নীল, ছাই রং, হালকা গোলাপি ইত্যাদি রং প্রাধান্য পেয়েছে ছেলেদের পাঞ্জাবি, শার্ট, পোলো শার্ট ও টি-শার্টে। এছাড়াও উঁচু কলার এবং ব্যান্ড কলারের শার্টের চাহিদা  রয়েছে।


ঈদে শিশুদের পোশাকঃ 

ঈদে শিশুদের জন্য সুতি, ভয়েল, লিনেন, কটন কাপড়ের পোশাকের চাহিদা বেশি। ছেলে শিশুদের জন্য রয়েছে বিভিন্ন প্রিন্টের ফতুয়া ও শার্ট। বাটিকের ফতুয়াও চলছে বেশ।


অন্যদিকে, মেয়ে শিশুদের জন্য রয়েছে গাউন, মেঝে ছোঁয়া ফ্রক ও কামিজ। এছাড়াও ফ্রকের সঙ্গে আলাদা করে কটির চাহিদাও রয়েছে বেশ। টপ, স্কার্ট, সালোয়ার-কামিজের উপর এমব্রয়ডারি, হ্যান্ড প্রিন্ট, স্ক্রিন প্রিন্টের নকশা প্রাধান্য পেয়েছে বেশি। 

আন্দোলন৭১/এডি