১১৫ মিলিয়ন ছেলের বিয়ে হয় শিশু বয়সে

image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক-

বাল্যবিয়ে; কেবল মেয়েদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই, এর শিকার ছেলেরাও কম হচ্ছেন না। এ নিয়ে বিশ্বব্যাপী সচেতনতা বাড়ছে, কিন্তু বাল্যবিয়ের সংখ্যা কমছে না। বর্তমানে প্রায় ২৩ মিলিয়ন শিশু ছেলে বিবাহিত জীবন যাপন করছে; যাদের বয়স ১৫ বছরের কম। সারা বিশ্বে ছেলেশিশুদের বাল্যবিবাহ পরিস্থিতি নিয়ে জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ পরিচালিত প্রথম গবেষণা জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে।

শুক্রবার (৭ জুন) প্রকাশিত জাতিসংঘের শিশু সংস্থা-ইউনিসেফ এর প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বের প্রায় ১১৫ মিলিয়ন ছেলের শিশু বয়সে বিয়ে হয়; যাদের ১৮ বছর হওয়ার আগেই এ কাজ সম্পন্ন হচ্ছে, তাদের মধ্যে ২৩ মিলিয়ন ছেলে ১৫ বছর বয়সেই বিয়ের পিঁড়িতে বসে।

৮২টি দেশ থেকে প্রাপ্ত তথ্য থেকে দেখা যায়, বিশ্বে আনুমানিক ৭৬৫ মিলিয়ন পর্যন্ত বাল্য বিয়ে হয়।

ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক হেনরিটা ফোর বলেন, ‘বাল্যবিয়ে শৈশব কেড়ে নেয়। ছেলে শিশুদের প্রাপ্তবয়স্কদের দায়িত্ব নিতে বাধ্য করা হয়, যার জন্য তারা প্রস্তুত নাও হতে পারে।’

গবেষণায় দেখা গেছে, ছেলেদের মধ্যে বাল্যবিবাহ বেশি হয় সাব-সাহারার আফ্রিকা, ল্যাটিন আমেরিকা, ক্যারিবীয়, দক্ষিণ এশিয়া, পূর্ব এশিয়া এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকে ২৮ শতাংশ ছেলের বাল্য বিয়ে হয়, যা ছেলেদের বাল্য বিয়ের হারের পরিসংখ্যানের দিক দিয়ে প্রথম।

এছাড়া নিকারাগুয়ায় দ্বিতীয় (১৯ শতাংশ) এবং মাদাগাস্কার তৃতীয় (১৩ শতাংশ) অবস্থানে রয়েছে।

জাতিসংঘের খবর অনুযায়ী, মেয়েদের মধ্যে বাল্যবিবাহের ব্যাপকতা, কারণ, প্রভাব নিয়ে বিস্তর আকারে গবেষণা করা হলেও ছেলেদের মধ্যে বাল্যবিবাহের ক্ষেত্রে তেমন গবেষণা হয়নি।

আন্দোলন৭১/ইউনিসেফ/এস