ঢাকা মঙ্গলবার,১৭,সেপ্টেম্বর, ২০১৯

৩৬ রানে জয় পেল ভারত

image

স্পোর্টস ডেস্ক-

লন্ডনের দা ওভালে রবিবার অজিদের ৩৬ রানে হারিয়ে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিল ভারত। অন্যদিকে বিশ্বকাপে দুই ম্যাচ জয়ের পর হার দেখল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। 

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বিরাট কোহলি। তার সেই সিদ্ধান্তটা যৌক্তিক করে শতরান তুলে নেন শিখর ধাওয়ান। দল তুলে ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ৩৫২ রান। জবাব দিতে নেমে ৫০ ওভারে অলআউট হয়ে অস্ট্রেলিয়া আটকে যায় ৩১৬ রানে।

বিশ্বকাপে এর আগে ৩২৮ রানের চেয়ে বড় লক্ষ্য টপকে জেতার রেকর্ড ছিল না! সেই পরিসংখ্যান মাথায় রেখেই চ্যালেঞ্জে নামে অজিরা। শুরুটা একেবারে মন্দও ছিল না তাদের। দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চ যোগ করেন ৬১ রান। ৩৬ রান করে রান আউটে কাটা পড়েন অজি ক্যাপ্টেন।

তবে ওয়ার্নার ছিলেন বেশ সাবলীল। অবশ্য হাফসেঞ্চুরির পরই ভুল করেন ইনফর্ম এই ব্যাটসম্যান। যুবেন্দ্র চাহালের স্পিনে ক্যাচ তুলে দেন ভুবনেশ্বর কুমারের হাতে। এরপর উসমান খাজা ও স্টিভেন স্মিথের ব্যাটে অসম্ভবকে সম্ভব করার পথেই ছিল ছিল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। মনে হচ্ছিল ওভালে হয়তো রোমাঞ্চ অপেক্ষা করছে। কিন্তু জুটি জমে যেতেই ভুল করলেন খাজা। রান রেট বাড়াতে গিয়ে জাসপ্রীত বুমরাহ বলে এলোমেলো শট খেলে তার আত্মহত্যা (৪২)।

এরপর তার পিছু নেন স্মিথ। আগের ইনিংসের হাফসেঞ্চুরিয়ান এবারও শতক পেলেন না। ফেরেন ৭০ বলে ৬৯ রানে। এরপরই ১৪ বলে ২৮ রানের ছোট্ট ঝড়ো ইনিংস খেলে এরপরই গ্লেন ম্যাক্সওয়েল বিদায় নিতেই ভয়াবহ বিপর্যয়ে পড়ে অজিরা। ৪০.৪ ওভারে ২৪৪ রানে ৬ উইকেট!

এরপর আর জয়ের স্বপ্ন বেঁচে থাকে না। কঠিন পথ পাড়ি দিয়ে রেকর্ডও গড়তে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। শেষ অব্দি অ্যালেক্স ক্যারির অপরাজিত ৫৫ রান শুধু ব্যবধানটাই কমিয়েছে।

এর আগে ব্যাট হাতে রান উৎসবই করেছে অস্ট্রেলিয়া। শিখর ধাওয়ান তুলে নিয়েছেন ঝলমলে সেঞ্চুরি। সঙ্গে হাফসেঞ্চুরি রোহিত ও বিরাট কোহলির ব্যাটে। তারই পথ ধরে বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কোনো দলের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়ে ভারত। দলটির বিপক্ষে বিশ্বকাপে আগের সর্বোচ্চ ছিল গতবার শ্রীলঙ্কার করা ৩১২ রান।

টস জিতে অধিনায়কের ব্যাট করার সিদ্ধান্তটা যৌক্তিক করে দারুণ সূচনা এনে দেন রোহিত শর্মা ও শিখর ধাওয়ান। দু'জন উদ্বোধনী জুটিতে তুলেন ১২৭ রান। আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান রোহিত ফেরেন ৭০ বলে ৫৭ রান করে। এদিনই মহেন্দ্র সিং ধোনির (৩৫৪) ছাড়িয়ে ভারতের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ছক্কার মালিক হয়ে যান তিনি।

সাবলীল শিখর ধাওয়ান এরপর ৯৫ বলে ১৩টি বাউন্ডারিতে তুলে নেন সেঞ্চুরি। যা তার ক্যারিয়ারের ১৭তম ওয়ানডে শতরান।

ধাওয়ান অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে করেন ৯৩ রান। ১০৯ বলে ১১৭ রানে আউট ধাওয়ান।

তারপর ভারত অধিনায়ক থামেন ৭৭ বলে ৮২ রান। ইনিংসে ছিল দুই ছক্কা আর ৪ বাউন্ডারি। হার্দিক পান্ডিয়া খেলেন টর্নেডো ইনিংস। ২৭ বলে আসে ৪৮ রান। সঙ্গে মহেন্দ্র সিং ধোনি ১৪ বলে ২৭। দল পায় বড় পুঁজি। যার পথ ধরেই এসেছে অনায়াস জয়। দক্ষিণ আফ্রিকার পর এবার অস্ট্রেলিয়া।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

ভারত- ৫০ ওভারে ৩৫২/৫ (রোহিত ৫৭, ধাওয়ান ১১৭, কোহলি ৮২, পান্ডিয়া ৪৮, ধোনি ২৭, রাহুল ১১*, কেদার ০*; কামিন্স ১/৫৫, স্টার্ক ১/৭৪, কোল্টার-নাইল ১/৬৩, স্টয়নিস ২/৬২)

অস্ট্রেলিয়া- ৫০ ওভারে ৩১৬/১০ (ওয়ার্নার ৫৬, ফিঞ্চ ৩৬, স্মিথ ৬৯, খাওয়াজা ৪২, ম্যাক্সওয়েল ২৮, স্টয়নিস ০, কেয়ারি ৫৫*, কোল্টার-নাইল ৪, কামিন্স ৮, স্টার্ক ৩, জ্যাম্পা ১; ভুবনেশ্বর ৩/৫০, বুমরাহ ৩/৬১, চেহেল ২/৬২)

ম্যাচসেরা- শিখর ধাওয়ান।

আন্দোলন৭১/জিকে